1. admin@doiniksongbadpotro24.com : admin :
খামার মামুদপুর সরঃ প্রাথঃ বিদ‍্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে সরকারি গাছ কাটার অভিযোগ - দৈনিক সংবাদপত্র
সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪, ০২:২৪ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
মনে পড়ছে এক শিশুকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ, আটক দুই শিক্ষা মন্ত্রী ব্রাত্য বসুর উপস্থিতিতে অনশন ভঙ্গ করলেন এবং মহা মিছিল করলেন তমলুকে। ঢাকা পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি – ২ এর কর্মকর্তাদের হয়রানিতে অতিষ্ঠ গ্রাহকরা, দেখার কেউ নেই : ঘাটালে সাত সকালে দুর্ঘটনার কবলে যাত্রীবাহী বাস,। স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে- কবিতাঃ- “স্বাধীনতা আমার” মহান স্বাধীনতা দিবস উৎযাপন উপলক্ষে ঢাকা প্রেস ক্লাবের আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার, জগন্নাথপুর এলাকায় রাস্তার বেহাল অবস্থা, এলাকাবাসীর ক্ষোভ। কলেজ ছাত্রীকে ইভটিজিং করা দায়ে গ্রেফতার এক হুজুর ট্রেনের সঙ্গে ধাক্কা লেগে অজ্ঞাত যুবক (৪০) নিহত

খামার মামুদপুর সরঃ প্রাথঃ বিদ‍্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে সরকারি গাছ কাটার অভিযোগ

গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধি : বাবুল রহমান রবিন
  • Update Time : বুধবার, ২৪ জানুয়ারী, ২০২৪
  • ১১৫ Time View

গাইবান্ধার পলাশবাড়ী উপজেলার মনোহরপুর ইউনিয়নের খামার মামুদপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ‍্যালয়ের প্রধান শিক্ষকসহ ম‍্যানেজিং কমিটির সদস্যদের বিরুদ্ধে টেন্ডার দেখিয়ে ১২ টি ও টেন্ডার ছাড়াই আরও ৯ টি গাছ কর্তনের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এব‍্যাপারে স্থানীয়রাসহ ছাত্র/ছাত্রীদের অভিভাবকেরা ২২ জানুয়ারি উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবরে একটি অভিযোগ দিয়েছেন।

অভিযোগসূত্রে জানা যায়,উপজেলার মনোহরপুর ইউনিয়নের ৩ নং ওয়ার্ডের খামার মামুদপুর সরকারি সরকারি প্রাথমিক বিদ‍্যালয়ের ৭ ইউক‍্যালিপটাশ গাছ,২ মেহগনি গাছ,২ টি আম গাছ ও ১ টি নারিকেল গাছসহ মোট ১২ টি গাছ বিক্রির টেন্ডার আহবান করেন উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা।
টেন্ডার আহবানের পর সর্বোচ্চ দরদাতা হিসেবে গাছগুলোর টেন্ডার পান পলাশবাড়ী পৌরসভার নুনিয়াগাড়ী গ্রামের মৃত আবুল কালাম আজাদের ছেলে আবু তৈয়ব সরকার (তোতা)। তাকে স্কুল থেকে ১২ টি গাছ অপসারণের নির্দেশ প্রদান করেন উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. বেল্লাল হোসেন। সেই মোতাবেক উক্ত গাছগুলো সে কর্তন করেন।
এরপর প্রধান শিক্ষক ও ম‍্যানেজিং কমিটির সদস্যরা এর সাথে উক্ত বিদ‍্যালয়ের আরও ৯ টি গাছ বিক্রি করেন গোপনে। বিষয়টি এলাকাবাসী ও অভিভাবকদের সন্দেহ হলে তারা টেন্ডারের কাগজপত্রে দেখেন ১২ টি গাছ।
এরপর বিষয়টি স্থানীয় সাংবাদিকদের অবগত করেন এবং একখানা অভিযোগ পত্র উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবরে দাখিল করেন। এর অনুলিপি প্রদান করেন,জেলা প্রশাসক,জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার,জেলা বনবিভাগ, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও উপজেলা প্রাথমিক অফিসার বরাবরে।
সরেজমিনে গিয়ে ওই বিদ‍্যালয়ে দেখা যায়,বিদ‍্যালয়ের দুই পাশে প্রাচীর নির্মাণের কাজ চলছে। সেই মোতাবেক খোঁড়াখুড়ি চলছে। আমরা বেশ কয়েকজন গণমাধ্যম কর্মী এবং প্রধান শিক্ষকসহ গাছের গোড়ালি গননা করে মোট ছোট-বড় গাছের সংখ্যা পাই ৩১ টি। তখন প্রধান শিক্ষক কিছু গাছের গোড়ালি গোপন করার চেষ্টা করেন।স্থানীয়দের মতে গাছ ৯ টির মূল্য প্রায় ১ লাখ ২০ হাজার টাকা।
অভিযুক্ত প্রধান শিক্ষিকা জানান,বিদ‍্যালয়ের সীমানা প্রাচীরের কাজ চলছে। সেজন্য উপজেলা শিক্ষা অফিসার বরাবরে গাছ কাটার জন‍্য আবেদন করেছিলাম। এরপর উপজেলা নির্বাহী অফিসার স‍্যার, নিলাম আহবান করে গাছগুলো কাটার অনুমতি প্রদান করেন। অতিরিক্ত গাছ কাটার বিষয়ে তিনি সঠিক উত্তর দিতে পারেননি।
এব‍্যাপারে অভিযোগকারীরা, সুষ্ঠু তদন্ত সাপেক্ষে দোষীদের বিরুদ্ধে ব‍্যবস্থা গ্রহণের দাবী জানান।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও খবর দেখুন
ডিজাইন: মোঃ রেজাউর রহমান রাজু মোবাইল: 01637156939
Theme Customized BY WooHostBD